চিতলমারীতে হামলায় তিন নারীসহ আহত - ৬

চিতলমারী প্রতিনিধি

আপডেট : ০১:৩০ পিএম, সোমবার, ৩ জুন ২০১৯ | ২৪৫৪১

চিতলমারী উপজেলায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সোমবার প্রতিপক্ষের হামলায় তিন নারীসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত সাধন বাড়ৈ (৩২) ও তার স্ত্রী রূপালী বাড়ৈকে (২৫) প্রথমে চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং অবস্থার অবনতি হলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। এই হামলার নেতৃত্বদানকারী লিটন শেখকে (৪৫) ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ আটক করেছে ।

প্রতিবেশী মিঠুন বাড়ৈ বাগেরহাট টুয়েন্টি ফোরকে জানান, সাধনের মা পূরবী বাড়ৈয়ের বার্ষিক স্মরণোৎসবে রোববার সকল আত্মীয়স্বজন সাধনদের বাড়িতে আসে। রোববার তাদের বাড়িতে অনুষ্ঠান হয়। পরদিন সোমবার সকাল সাতটার দিকে প্রতিপক্ষ লিটন শেখ তার লোকজন নিয়ে জায়গা দখল করতে সাধনদের বসতবাড়িতে এসে এলোপাথাড়ী মারপিট শুরু করে। তাদের হামলায় আহত হয় পার-ডুমুরিয়া গ্রামের সুরেন বাড়ৈয়ের পুত্র সাধন বাড়ৈ (৩২), সাধনের স্ত্রী রূপালী বাড়ৈ (২৫), সাধনের ভাই ভজন বাড়ৈ (৩০), ছোট দুই বোন মলিনা ব্রহ্ম (৩৫) ও উত্তরা রায় (২২)।

আটক লিটন শেখ বাগেরহাট টুয়েন্টি ফোরকে জানান, উক্ত জায়গা নিয়ে সাধনদের সাথে তার বিরোধ রয়েছে। ওরা হামলা করলে তিনি আত্মরক্ষার চেষ্টা করেন এবং ওদের মারপিটে তিনি নিজে ও আহত হয়েছেন।

চিতলমারী থানার পরিদর্শক (ওসি) অনুকুল সরকার বাগেরহাট টুয়েন্টি ফোরকে জানান, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সদর ইউনিয়নের পার-ডুমুরিয়া গ্রামের লিটন শেখের নেতৃত্বে একদল লোক সাধন বাড়ৈয়ের পরিবারের উপর হামলা করে। তাদের মারপিটে মারাত্মক আহতরা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এই ঘটনায় লিটন শেখকে আটক করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখাকালিন থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত