ফকিরহাটে ভৈরব নদীর মাটি  উত্তোলনের অপরাধে ৫০হাজার  টাকা জরিমানা

ফকিরহাট প্রতিনিধি

আপডেট : ০৭:২৮ পিএম, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪ | ১৭৪

ফকিরহাটে ভৈরব নদের পাড় থেকে অবৈধ ভাবে মাটি উত্তোলনের অপরাধে একটি ইট ভাটার ম্যানেজারকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বিষয়টি বুধবার দুপুরে নিশ্চিত করেন উপজেলা প্রশাসন। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এম আব্দুল্লাহ ইবনে মাসুদ আহম্মেদ জানান, মৌভোগ এলাকায় অবৈধ ভাবে ভৈরব নদের মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছিল একটি ইট ভাটার মালিক কর্তৃপক্ষ। খবর পেয়ে মঙ্গলবার বিকেলে সেখানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে আল-মদিনা ব্রিকস্ এর ম্যানেজার মো. আ. ছালামকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি আরো বলেন, এসময় তিনি ২৪ ঘন্টার মধ্যে নদের তীর থেকে সকল ইট সরিয়ে নেওয়ার নির্দ্দেশ প্রদান করেন। এছাড়া একমাসের মধ্যে মাটি উত্তোলন স্থানে মাটি ভরাট করার নির্দেশ দেন। অন্যথায় ওই ইট ভাটা মালিকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার নলধা-মৌভোগ ইউনিয়নের মৌভোগ এলাকার ভৈরব নদ খননের পর পাড়ে রাখা মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছিল আল-মদিনা ব্রিকস্ নামে একটি ইট ভাটা কর্তৃপক্ষ। সেই মাটি দিয়ে ভাটায় ইট তৈরী করা হয় বলেও জানান তারা। যে কারনে নদীর তীর ঘেষে গড়ে উঠা প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া আশ্রয়নের ঘরগুলো ঝুঁকির আশংকা ছিল। পাশাপাশি ভরা বর্ষা মৌসুমে এলাকা পানিতে প্লাবিত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া সিদ্দিকা সেতু বলেন, উপজেলার মৌভোগ এলাকায় ভৈরব নদ থেকে ইট তৈরী করার জন্য একটি মহল মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছিল। এমন খবর পেয়ে সেখানে এসিল্যান্ড অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় ইট ভাটার ম্যানেজারকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা করেন। এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত