চিতলমারীতে পুলিশের অভিযানে আটক-৮, থানায় ৩ মামলা

চিতলমারী প্রতিনিধি

আপডেট : ০৯:৫২ পিএম, রোববার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | ১৩১

বাগেরহাটের চিতলমারী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে জুয়াখেলা ও মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয়ের অভিযোগে ৮ জনকে আটক করেছেন। আটককৃতদের বিরুদ্ধে রোববার সকালে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ও জুয়া আইনে পৃথক ৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ এদিন আটককৃতদের আদালতে প্রেরণ করেছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শনিবার দিবাগত গভীর রাতে চিতলমারী থানা পুলিশ পৃথক ভাবে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। এ সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সঞ্জয় মন্ডল সংগীয় ফোর্স নিয়ে উপজেলার বড়বাড়িয়া বাজারে মাইনুরের চায়ের দোকানের মধ্যে থেকে তাস খেলা অবস্থায় বড়বাড়িয়া গাংপাড় এলাকার সুলতান সরদারের ছেলে দেলোয়ার সরদার (৫২), শাহিন শেখের ছেলে রাসেল শেখ (২৪),জাকির শেখের ছেলে সোহেল শেখ (২৭), বেল্লাল উকিলের ছেলে মাইনুর উকিল (৩২) ও বাদশা শেখের ছেলে শহীদ শেখ (৩০) কে নগদ টাকা ও তাসসহ আটক করেন।

এদিন রাতে তারা (পুলিশ) ৩৫ গ্রাম গাঁজাসহ বড়বাড়িয়া উকিলপাড়া এলাকার আক্তার উকিলের ছেলে মোঃ হোসেন উকিলকে (৩১) আটক করে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে এসআই সঞ্জয় মন্ডল বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ও জুয়া আইনে পৃথক ২টি মামলা দায়ের করেছেন।


অপরদিকে, এদিন রাত ১১ টার দিকে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মঈনুর
সংগীয় ফোর্স নিয়ে গোড়ানালুয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে হাদিউজ্জামানের দোকানের সামনে রাস্তার উপর থেকে নালুয়া এলাকার মোঃ আতিয়ার রহমান মুন্সির ছেলে মোঃ রফিকুল ইসলাম (২৬) ও মোঃ নুর ইসলাম শেখের ছেলে মোঃ সেলিম শেখ (২৫) কে ২৫ পিচ ইয়াবা ও নগদ ৫০ হাজার ৯৮০ টাকাসহ আটক করেন।

এসআই মঈনুর বাদী হয়ে আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। আটককৃত ৮ জনকে রোববার পুলিশ আদালতে প্রেরণ করেছেন। চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ইকরাম হোসেন বলেন, ‘মাদক ও জুয়ার বিরুদ্ধে পুলিশ জিরোটলারেন্স নীতিতে কাজ করছে। মাদক ও জুয়ার বিরুদ্ধে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত